বাংলাদেশের দক্ষিণে মেঘনা ও বঙ্গোপসাগরের মোহনায় অবস্থিত চট্টগ্রাম বিভাগের একটি সুপ্রাচীন জনপদ নোয়াখালী জেলা। জেলার আয়তন ৪২০২.৭০ বর্গ কিঃমিঃ। এর উত্তরে কুমিল্লা জেলা, দক্ষিণে মেঘনার মোহনা এবং বঙ্গোপসাগর, পূর্বে ফেনী এবং চট্টগ্রাম জেলা, পশ্চিমে লক্ষ্মীপুর এবং ভোলা জেলা। চাটখিল, সেনবাগ, সোনাইমুড়ী, বেগমগঞ্জ, নোয়াখালী সদর, কবিরহাট, কোম্পানীগঞ্জ, সুবর্ণচর, হাতিয়া এই ৯টি উপজেলা নিয়ে নোয়াখালী জেলা গঠিত। এ জেলার মোট জনসংখ্যা৩৩,৭০,২৫১ জন । কৃষি, মৎস্য শিকার ও পশু পালন এ অঞ্চলের প্রধান জীবিকা। কবিতার ভাষায় জেলাটিকে এভাবে বর্ণনা করা হয়েছে-
“ হাট বাজার নদী খাল, নারিকেল সুপারী তাল 
ভাঙা গড়ার চোরাবালি, তারই নাম নোয়াখালী ’’ 
ঐতিহ্যগতভাবে এ জেলার মানুষ কর্মঠ, বুদ্ধিমান ও সত্যানুসন্ধানী। ধর্মপ্রাণ এ জেলার লোকজন হিন্দু মুসলমান এক  অনুসরণীয় ভ্রাতৃত্ববন্ধনে বসবাস করেন। অক্লান্ত পরিশ্রমী এই মানুষগুলোকে বিগত ১৭৭২ সাল থেকে অনবরত সেবা দিয়ে আসছে জেলা প্রশাসন।  কিন্ত এ পদ্ধতি আধুনিক লাগসই প্রযুক্তি নির্ভর না হওয়ায় এতে জনগণের মতামতের অংশগ্রহণ আশানুরুপ ছিল না। সরকার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে সেবার মানকে আরও একধাপ এগিয়ে নিতে জেলা ওয়েব পোর্টাল তৈরির এক মহতী উদ্যোগ গৃহীত হয়েছে। এর মাধ্যমে সম্মানিত সেবাপ্রত্যাশী জনগণ জেলার সকল দপ্তরের প্রদত্ত সেবা সম্পর্কে অবগত হতে পারবেন অপরদিকে প্রয়োজনীয় মতামত কিংবা ক্ষেত্র বিশেষে আপত্তি উথ্বাপন করতে পারবেন। জেলার সকল অধিবাসী এবং প্রবাসীসহ দেশের আপামর জনগণ এর মাধ্যমে অনেক উপকৃত হবেন বলে আশা করা যায়।